চোখ ভালো রাখতে নিয়মিত কাঁদুন

চোখ ভালো রাখতে নিয়মিত কাঁদুন

চোখ হলো মানবদেহের সবচেয়ে সংবেদনশীল অঙ্গ। বস্তু থেকে আলো চোখে প্রতিফলিত হয় । তাই আমরা কোনো বস্তুকে দেখতে পাই। একারণে আলোর সঠিক ব্যবহার চোখকে ভালো রাখতে খুব দরকারি। আজ জানবো কিভাবে চোখ ভালো রাখতে কি করা উচিৎ।

চোখ ভালো রাখতে করণীয়

খুব তীব্র আলো যেমন চোখের জন্য ক্ষতিকর তেমনি খুব ক্ষীণ আলো-ও চোখের জন্য ক্ষতিকর । দিনের সূর্যের আলো সরাসরি চোখে লাগানো ক্ষতিকর। এই ক্ষতি থেকে বাঁচতে রোদচশমা খুব কার্যকর।

টিভির স্ক্রিন থেকে আসা আলো চোখের ক্ষতি করে। তাই টিভি দেখার সময় একটি বাল্ব জ্বালিয়ে টিভি দেখলে টিভি থেকে আসা আলো চোখের তেমন ক্ষতি করতে পারে না। তবে অবশ্যই টিভি থেকে ১০ ফুট দুরত্বে থেকে টিভি দেখা উচিত।

মাথার খুশকি থেকে চোখ আক্রান্ত হয়ে ব্লেফারাইটিস দেখা দিতে পারে। চোখে প্রসাধনী ব্যবহার করলে চোখের ক্ষতি হতে পারে। অনেকেরই প্রসাধনী ব্যবহারের ফলে এলার্জিক সমস্যা দেখা দেয়।

চশমা ব্যবহার করে চোখকে অনেকটাই প্রতিরক্ষা দেওয়া যায়। যাঁদের চশমা প্রয়োজন‚ তাঁদের অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শমতো দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা করে চশমা পরা উচিত। তবে নিজের পছন্দমতো চশমা নির্বাচন খুব বড় ক্ষতির কারণ হতে পারে।

আঘাত থেকে বাঁচতে এবং ধুলো-ময়লা থেকে চোখকে রক্ষা করতে চশমা ব্যবহার করা ভালো । কারণ ধুলো-ময়লায় অনেকের এলার্জিক সমস্যা আছে। যদি হঠাৎ চোখে কিছু পড়ে তাহলে দ্রুত চোখে শীতল পানি ঢালা উচিত ৷

আরও পড়ুন

চোখে বালু‚ পাথর ‚ কীটপতঙ্গ পড়লে মোটেও ঘষাঘষি করা উচিত নয়। এতে চোখের খুব বড় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে । খুব সাবধানে নরম কাপড় বা কটন বাটস্ দিয়ে চোখের ভিতর থেকে ময়লা বের করার চেষ্টা করতে হবে।

যদি তাতেও কাজ না হয় তাহলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে । তবে বাচ্চাদের ক্ষেত্রে খুব সতর্ক থাকা উচিত। কারণ প্রচুর ব্যথা অনুভব হলে স্বভাবতই তাঁরা চোখ চুলকাবে। ফলে চোখের বড় ক্ষতির সম্ভাবনা থেকেই যায়।

এছাড়া চোখের অশ্রুতে লাইসোজাইম নামক এনজাইম থাকে। এটি ব্যাকটেরিয়ানাশক হিসাবে কাজ করে । চোখকে বারংবার ভিজিয়ে দিয়ে অশ্রু বহিরাগত কণা ও অণুজীবের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে । তাই চোখ ভালো রাখতে নিজে কাঁদুন এবং পাশের মানুষটিকে কাঁদতে সহায়তা করুন।

লেখক
আল শাহারিয়া
দ্বাদশ শ্রেণি (বিজ্ঞান)
সরকারি সুন্দরবন আদর্শ কলেজ,খুলনা

Leave a Reply