সত্যব্রত বিশ্বাস বাপ্পির ভাষা আন্দোলন নিয়ে কবিতা “রত্ন ক্ষয়”

সত্যব্রত বিশ্বাস বাপ্পির ভাষা আন্দোলন নিয়ে কবিতা

রত্ন ক্ষয়
সত্যব্রত বিশ্বাস বাপ্পি

মুখের উপর দেওয়াল টানিয়ে দিয়ে-
ওরা
লিখতে চেয়েছিল উর্দু হরফ।
আমরা বলেছিলাম বুক খোলা আছে,
চালাও তোমার বুলেট-বেয়োনেট,
বুকেই যখন জন্ম বাংলা ভাষার,
সেই রক্ত দিয়েই মুছে দেব ওই কালো হরফ।

ফাগুনে আগুন ধরলো চেতনায়,
ক্ষোভে ফুসে উঠলো ৫৬ হাজার বর্গমাইল।
যে ভাষায় বাউল, সারি, ভাটিয়ালি,
সকাল বেলায় মায়ের বকুনি,
রাত্রী হলে বাবার শাসন,
ছড়া,গান আর কবিতার মিলন,
এতো সহজে সেই ভাষা মুছে দেওয়া যাবে?

রক্ত গেলো কতো,
লাশ হয়ে গেলো আমার তাজা তরুন ভাই,
খালি হয়ে যাওয়া বুকে কেঁদেছিলেন মা,
তবুও সে অশ্রুতে ছিল বাংলা ভাষার ঘ্রান।

রক্তে অর্জিত সেই রত্ন আজ ক্ষয় হতে বসেছে মূল্যবোধের অবক্ষয়ের ধারায়,
ছড়া,গানের বদলে শিশুরা পড়েছে হিন্দি ডোরিমোনের মায়ায়।
এতো আবেগের বাংলা ভাষা আজ বিকৃত হয়ে চলেছে আমাদের ই অবহেলায়।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here